আজ রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন দিন
জাতীয়, আঞ্চলিক, স্থানীয় পত্রিকাসহ অনলাইন পোর্টালে যে কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। মেসার্স রুকাইয়া এড ফার্ম -01711 211241

ভোটারকে চড় মেরে পাল্টা চড় খেলেন এমপি

  • রিপোর্টার
  • আপডেট সময়: ০৮:১৫:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪
  • ১২ বার পড়া হয়েছে

ভোটারের গালে চড় বসালেন একজন সংসদ সদস্য। তবে পার পেয়ে যাননি তিনি। পাল্টা চড়ও খেয়েছেন ক্ষুব্ধ ওই ভোটারের কাছ থেকে। জানা যায়, দীর্ঘ সময় ধরে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু লাইন ভেঙে কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টা করছিলেন ওই এমপি। এ সময় তাকে বাধা দিতে গেলেই ঘটে এমন কাণ্ড। ভারতের চতুর্থ দফার নির্বাচনের দিন সোমবার দেশটির অন্ধ্রপ্রদেশের একটি ভোটকেন্দ্রে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে। ভিআইপি হিসেবে ভোটের সারিতে না দাঁড়িয়ে সরাসরি ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির বিধানসভার এমএলএ এ শিবকুমার। ভোটারকে শিবকুমারের চড় এবং ভোটারের পাল্টা চড়ের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। এই ঘটনায় দেশটির নাগরিকরা ভিআইপি সংস্কৃতি সমালোচনা করে ওই আইনপ্রণেতার শাস্তির দাবি করেছেন। তারা বলেন, একজন আইনপ্রণেতা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোটারের সঙ্গে এই ধরনের আচরণ করতে পারেন না।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, বিধায়ক এ শিবকুমার ভোটারদের লাইনে না দাঁড়িয়ে সরাসরি ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় আপত্তি জানিয়েছিলেন ওই ভোটার। পরে সঙ্গে সঙ্গে তার গালে কষে থাপ্পড় বসিয়ে দেন বিধায়ক শিবকুমার। ওই ভোটারও তড়িৎ গতিতে পাল্টা থাপ্পড় মারেন বিধায়কের গালে। এ সময় বিধায়কের সঙ্গে থাকা দলীয় নেতাকর্মীরা ওই ভোটারকে বেধড়ক মারপিট করেন। ভাইরাল হওয়া ১০ সেকেন্ডের ভিডিওতে ওই সময় ভোটারকে রক্ষায় নিরাপত্তা বাহিনীর কোনো কর্মকর্তাকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাতাহাতি শুরু হওয়ার আগে ঠিক কী ঘটেছিল তা পরিষ্কার নয়। তবে ভোটারকে বিধায়কের থাপ্পড়ের এ ঘটনা ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে।

বিরোধী জোট টিডিপির মুখপাত্র জোছনা তিরুনাগি এনডিটিভিকে বলেছেন, ঘটনাটি ক্ষমতাসীন দলের হতাশার চিত্র তুলে ধরেছে। কারণ তারা জানে, তাদের দল হেরে যাচ্ছে। এটা হাস্যকর। আর ভোটারদের প্রতিশোধের ঘটনায় এটা পরিষ্কার, মানুষ আর এই নির্বোধ নেতাদের সহ্য করবে না। ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির বিধায়ক আব্দুল হাফিজ খান বলেছেন, তারা ভাইরাল ভিডিওটি পর্যালোচনা করে দেখছেন। এই ঘটনার মাধ্যমে শাসক দলের বিরুদ্ধে বদনাম করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করেছেন তিনি।

ট্যাগস:

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

ভোটারকে চড় মেরে পাল্টা চড় খেলেন এমপি

আপডেট সময়: ০৮:১৫:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

ভোটারের গালে চড় বসালেন একজন সংসদ সদস্য। তবে পার পেয়ে যাননি তিনি। পাল্টা চড়ও খেয়েছেন ক্ষুব্ধ ওই ভোটারের কাছ থেকে। জানা যায়, দীর্ঘ সময় ধরে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু লাইন ভেঙে কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টা করছিলেন ওই এমপি। এ সময় তাকে বাধা দিতে গেলেই ঘটে এমন কাণ্ড। ভারতের চতুর্থ দফার নির্বাচনের দিন সোমবার দেশটির অন্ধ্রপ্রদেশের একটি ভোটকেন্দ্রে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে। ভিআইপি হিসেবে ভোটের সারিতে না দাঁড়িয়ে সরাসরি ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির বিধানসভার এমএলএ এ শিবকুমার। ভোটারকে শিবকুমারের চড় এবং ভোটারের পাল্টা চড়ের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। এই ঘটনায় দেশটির নাগরিকরা ভিআইপি সংস্কৃতি সমালোচনা করে ওই আইনপ্রণেতার শাস্তির দাবি করেছেন। তারা বলেন, একজন আইনপ্রণেতা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোটারের সঙ্গে এই ধরনের আচরণ করতে পারেন না।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, বিধায়ক এ শিবকুমার ভোটারদের লাইনে না দাঁড়িয়ে সরাসরি ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় আপত্তি জানিয়েছিলেন ওই ভোটার। পরে সঙ্গে সঙ্গে তার গালে কষে থাপ্পড় বসিয়ে দেন বিধায়ক শিবকুমার। ওই ভোটারও তড়িৎ গতিতে পাল্টা থাপ্পড় মারেন বিধায়কের গালে। এ সময় বিধায়কের সঙ্গে থাকা দলীয় নেতাকর্মীরা ওই ভোটারকে বেধড়ক মারপিট করেন। ভাইরাল হওয়া ১০ সেকেন্ডের ভিডিওতে ওই সময় ভোটারকে রক্ষায় নিরাপত্তা বাহিনীর কোনো কর্মকর্তাকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাতাহাতি শুরু হওয়ার আগে ঠিক কী ঘটেছিল তা পরিষ্কার নয়। তবে ভোটারকে বিধায়কের থাপ্পড়ের এ ঘটনা ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে।

বিরোধী জোট টিডিপির মুখপাত্র জোছনা তিরুনাগি এনডিটিভিকে বলেছেন, ঘটনাটি ক্ষমতাসীন দলের হতাশার চিত্র তুলে ধরেছে। কারণ তারা জানে, তাদের দল হেরে যাচ্ছে। এটা হাস্যকর। আর ভোটারদের প্রতিশোধের ঘটনায় এটা পরিষ্কার, মানুষ আর এই নির্বোধ নেতাদের সহ্য করবে না। ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির বিধায়ক আব্দুল হাফিজ খান বলেছেন, তারা ভাইরাল ভিডিওটি পর্যালোচনা করে দেখছেন। এই ঘটনার মাধ্যমে শাসক দলের বিরুদ্ধে বদনাম করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করেছেন তিনি।