আজ রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন দিন
জাতীয়, আঞ্চলিক, স্থানীয় পত্রিকাসহ অনলাইন পোর্টালে যে কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। মেসার্স রুকাইয়া এড ফার্ম -01711 211241

প্রস্তুতিতে জিম্বাবুয়েকে মানতে পারছেন না সাকিব

  • রিপোর্টার
  • আপডেট সময়: ০৮:৪৭:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মে ২০২৪
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাকি নেই আর এক মাস সময়। বিশ্বকাপের দলগঠন থেকে শুরু করে প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সময় পার করছে অংশগ্রহণকারী দেশগুলো। ব্যতিক্রম নয় বাংলাদেশও। শেষ সময়ের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর এ মাসের শেষ দিকে বিশ্বকাপের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের ইতোমধ্যে মাঠে গড়িয়েছে দুই ম্যাচ। প্রথম দুই ম্যাচেই দাপুটে জয় পেয়েছে টাইগাররা। দেড়শ পেরোনোর আগেই আটকে রেখেছে সফরকারীদের। দেখে মনে হবে বেশ ভালো প্রস্তুতিই সারছে বাংলোদেশ। কিন্তু বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানালেন ভিন্ন কথা।

সিরিজ শুরুর আগে থেকেই নেট দুনিয়ায় সমালোচনা চলছিল, প্রতিপক্ষ হিসেবে বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়া তুলনামূলক দুর্বল জিম্বাবুয়েকে বাছাই করায়। প্রশ্ন উঠছিল, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি কতটা আদর্শ হবে। এবার সেই সুরেই সুর মেলালেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সাকিব আল হাসান সাংবাদিকদের বলেছেন, জিম্বাবুয়ে আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলে বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখা উচিত নয়। বিশ্বকাপ পুরো আলাদা একটা মঞ্চ, অনেক চাপ থাকে। সেই চাপ কাটিয়ে উঠলেই ভালো পারফরম্যান্স হবে। তবে গতবারের থেকে এবারের পারফরম্যান্স ভালো করার চেষ্টা তো থাকবেই দলের, সে ক্ষেত্রে গ্রুপপর্বে তিনটি ম্যাচ জিততেই হবে। তাই বিশ্বকাপের আগে টানা দুই ম্যাচ জয়ের পরও আশায় বুক বাঁধতে পারছেন না জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার বলছেন- জিম্বাবুয়ে এবং যুক্তরাষ্ট্রের মতো তুলনামূলক দুর্বল দলের সঙ্গে জিতে তেমন আত্মবিশ্বাস পাওয়া যাবে না। তার চেয়ে ভারত-পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের মতো ক্রিকেট পরাশক্তি দলগুলোর সঙ্গে খেলতে পারলে ভালো হতো।

জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ যেহেতু আমাদের অজানা, তাই সেখানে তাদের বিরুদ্ধে খেলার সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া যায়, কিন্তু একদম দুর্বল প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলে কখনো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে নামার প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব নয়। গতবার নিউজিল্যান্ড আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম।
ট্যাগস:

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

প্রস্তুতিতে জিম্বাবুয়েকে মানতে পারছেন না সাকিব

আপডেট সময়: ০৮:৪৭:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মে ২০২৪

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাকি নেই আর এক মাস সময়। বিশ্বকাপের দলগঠন থেকে শুরু করে প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সময় পার করছে অংশগ্রহণকারী দেশগুলো। ব্যতিক্রম নয় বাংলাদেশও। শেষ সময়ের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর এ মাসের শেষ দিকে বিশ্বকাপের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের ইতোমধ্যে মাঠে গড়িয়েছে দুই ম্যাচ। প্রথম দুই ম্যাচেই দাপুটে জয় পেয়েছে টাইগাররা। দেড়শ পেরোনোর আগেই আটকে রেখেছে সফরকারীদের। দেখে মনে হবে বেশ ভালো প্রস্তুতিই সারছে বাংলোদেশ। কিন্তু বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানালেন ভিন্ন কথা।

সিরিজ শুরুর আগে থেকেই নেট দুনিয়ায় সমালোচনা চলছিল, প্রতিপক্ষ হিসেবে বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়া তুলনামূলক দুর্বল জিম্বাবুয়েকে বাছাই করায়। প্রশ্ন উঠছিল, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি কতটা আদর্শ হবে। এবার সেই সুরেই সুর মেলালেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সাকিব আল হাসান সাংবাদিকদের বলেছেন, জিম্বাবুয়ে আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলে বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখা উচিত নয়। বিশ্বকাপ পুরো আলাদা একটা মঞ্চ, অনেক চাপ থাকে। সেই চাপ কাটিয়ে উঠলেই ভালো পারফরম্যান্স হবে। তবে গতবারের থেকে এবারের পারফরম্যান্স ভালো করার চেষ্টা তো থাকবেই দলের, সে ক্ষেত্রে গ্রুপপর্বে তিনটি ম্যাচ জিততেই হবে। তাই বিশ্বকাপের আগে টানা দুই ম্যাচ জয়ের পরও আশায় বুক বাঁধতে পারছেন না জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার বলছেন- জিম্বাবুয়ে এবং যুক্তরাষ্ট্রের মতো তুলনামূলক দুর্বল দলের সঙ্গে জিতে তেমন আত্মবিশ্বাস পাওয়া যাবে না। তার চেয়ে ভারত-পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের মতো ক্রিকেট পরাশক্তি দলগুলোর সঙ্গে খেলতে পারলে ভালো হতো।

জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ যেহেতু আমাদের অজানা, তাই সেখানে তাদের বিরুদ্ধে খেলার সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া যায়, কিন্তু একদম দুর্বল প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলে কখনো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে নামার প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব নয়। গতবার নিউজিল্যান্ড আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম।