আজ রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন দিন
জাতীয়, আঞ্চলিক, স্থানীয় পত্রিকাসহ অনলাইন পোর্টালে যে কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। মেসার্স রুকাইয়া এড ফার্ম -01711 211241

মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে বাংলাদেশের লাভ নেই : জালাল ইউনুস

  • রিপোর্টার
  • আপডেট সময়: ০৩:০৪:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রাঞ্চাইজি প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের এবারের আসরে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন বাংলাদেশের পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। ৫ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে এবারের আইপিএলের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হওয়ার দৌড়ে আছেন তিনি। তবে আইপিএলের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে বেশিদিন আর মাঠ মাতাতে দেখা যাবে না তাকে। দেশের মাটিতে হতে যাওয়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের জন্য মোস্তাফিজকে ২ মে দেশে ফিরতে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পহেলা মে চেন্নাইয়ের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেই দেশে ফিরতে হচ্ছে এই কাটার মাস্টারকে।

যদিও অনেকের মত, জিম্বাবুয়ের মতো দলের বিপক্ষে সিরিজের বদলে ফিজকে আইপিএলে খেলতে দিলেই বেশি লাভবান হবে বাংলাদেশ। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় এবং কোচদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করা এবং ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে ভালো কাজে আসতে পারে বলেই বিশ্বাস অনেকের। তবে বিসিবি এই ধারণার সাথে একমত নয়। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বুধবার (১৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমকে জানান, মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে বাংলাদেশের কোনো লাভ হবে না। আর মোস্তাফিজেরও আইপিএল থেকে শেখার কিছু নেই। মিরপুরে আজ উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে ভালো হতো কোন দিক দিয়ে? মোস্তাফিজের আইপিএল খেলে এখন শেখার কিছু নেই। মোস্তাফিজের শেখার প্রক্রিয়া শেষ। বরং মোস্তাফিজের থেকে শিখতে পারে আইপিএলের অনেক ক্রিকেটার। এতে বাংলাদেশেরও কোনো লাভ হবে না। মোস্তাফিজের কাছাকাছি থেকে অন্যদের লাভ হবে।’

এ ছাড়াও খেলার চেয়ে মোস্তাফিজের ফিটনেস নিয়ে বিসিবি ভাবছে বলে জানান বর্ষীয়ান এই ক্রিকেট কর্তা। তিনি বলেন, ‘আমাদের চিন্তা হচ্ছে, মোস্তাফিজের স্বাস্থ্য। তার ফিটনেস। সেখানে তারা চাইবে, মোস্তাফিজের থেকে শতভাগ নিতে। তার ফিটনেস নিয়ে তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই। কিন্তু আমাদের আছে।’ সেক্ষেত্রে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মোস্তাফিজকে পাঁচ ম্যাচ খেলানো নিয়ে তিনি ইঙ্গিত দেন তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হলেও সব ম্যাচ খেলানো হবে না। তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজকে ফেরানো শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলানোর জন্য না। এখানে আমরা তার ওয়ার্ক লোড ম্যানেজ করেই খেলাব। কিন্তু আইপিএল থাকলে সেটা হবে না।’

ফ্র্যাঞ্চাইজির চেয়ে জাতীয় দলের চাওয়াটাই যে বড়, সেটাও বুঝিয়ে দিয়েছেন জালাল ইউনুস। তিনি বলেছেন, ‘মোস্তাফিজের জাতীয় দলের ব্যাপারটা আমরা দেখি। বুঝতে পারছি, তাদের মোস্তাফিজকে প্রয়োজন কিন্তু…জাতীয় দলের চাওয়া তো প্রথমে। আপনারা জানেন, ২০২১ সালে আমাদের দুজন ক্রিকেটার আইপিএল খেলে বিশ্বকাপে যোগ দিয়েছিল। তারা ওখানে ক্লান্তি অনুভব করেছিল। তারাও সেটি বলেছে। আমরা ও রকম পরিস্থিতি চাই না।’

সব সংস্করণ মিলিয়ে প্রথমবারের মতো ২০ দলের কোনো বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে আগামী জুনে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাই সতেজ মোস্তাফিজকে চায় বিসিবি। জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘দলের সঙ্গে থাকলে বোঝাপড়া বাড়বে। একটা বিশ্বকাপ, বড় ইভেন্ট হতে যাচ্ছে, এর আগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে যাতে থাকতে পারে, যেতে পারে। কারণ, মে মাসেই কিন্তু আমাদের খেলা শুরু হয়ে যাবে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৩টি টি-টোয়েন্টি। তাকে তো সেখানে মানিয়ে নিতে হবে। যাওয়ার আগে তো তার ফিট থাকতে হবে। শারীরিকভাবে ফিট থাকতে হবে। ক্লান্তি নিয়ে গেলে সে তো ডেলিভারি করতে পারবে না। তাহলে আমার কী দরকার? আমাকে তার প্রয়োজন। সতেজ মোস্তাফিজ চাই। ক্লান্ত মোস্তাফিজকে চাই না।’

ট্যাগস:

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে বাংলাদেশের লাভ নেই : জালাল ইউনুস

আপডেট সময়: ০৩:০৪:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রাঞ্চাইজি প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের এবারের আসরে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন বাংলাদেশের পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। ৫ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে এবারের আইপিএলের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হওয়ার দৌড়ে আছেন তিনি। তবে আইপিএলের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে বেশিদিন আর মাঠ মাতাতে দেখা যাবে না তাকে। দেশের মাটিতে হতে যাওয়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের জন্য মোস্তাফিজকে ২ মে দেশে ফিরতে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পহেলা মে চেন্নাইয়ের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেই দেশে ফিরতে হচ্ছে এই কাটার মাস্টারকে।

যদিও অনেকের মত, জিম্বাবুয়ের মতো দলের বিপক্ষে সিরিজের বদলে ফিজকে আইপিএলে খেলতে দিলেই বেশি লাভবান হবে বাংলাদেশ। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় এবং কোচদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করা এবং ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে ভালো কাজে আসতে পারে বলেই বিশ্বাস অনেকের। তবে বিসিবি এই ধারণার সাথে একমত নয়। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বুধবার (১৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমকে জানান, মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে বাংলাদেশের কোনো লাভ হবে না। আর মোস্তাফিজেরও আইপিএল থেকে শেখার কিছু নেই। মিরপুরে আজ উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজ আইপিএল খেললে ভালো হতো কোন দিক দিয়ে? মোস্তাফিজের আইপিএল খেলে এখন শেখার কিছু নেই। মোস্তাফিজের শেখার প্রক্রিয়া শেষ। বরং মোস্তাফিজের থেকে শিখতে পারে আইপিএলের অনেক ক্রিকেটার। এতে বাংলাদেশেরও কোনো লাভ হবে না। মোস্তাফিজের কাছাকাছি থেকে অন্যদের লাভ হবে।’

এ ছাড়াও খেলার চেয়ে মোস্তাফিজের ফিটনেস নিয়ে বিসিবি ভাবছে বলে জানান বর্ষীয়ান এই ক্রিকেট কর্তা। তিনি বলেন, ‘আমাদের চিন্তা হচ্ছে, মোস্তাফিজের স্বাস্থ্য। তার ফিটনেস। সেখানে তারা চাইবে, মোস্তাফিজের থেকে শতভাগ নিতে। তার ফিটনেস নিয়ে তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই। কিন্তু আমাদের আছে।’ সেক্ষেত্রে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মোস্তাফিজকে পাঁচ ম্যাচ খেলানো নিয়ে তিনি ইঙ্গিত দেন তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হলেও সব ম্যাচ খেলানো হবে না। তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজকে ফেরানো শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলানোর জন্য না। এখানে আমরা তার ওয়ার্ক লোড ম্যানেজ করেই খেলাব। কিন্তু আইপিএল থাকলে সেটা হবে না।’

ফ্র্যাঞ্চাইজির চেয়ে জাতীয় দলের চাওয়াটাই যে বড়, সেটাও বুঝিয়ে দিয়েছেন জালাল ইউনুস। তিনি বলেছেন, ‘মোস্তাফিজের জাতীয় দলের ব্যাপারটা আমরা দেখি। বুঝতে পারছি, তাদের মোস্তাফিজকে প্রয়োজন কিন্তু…জাতীয় দলের চাওয়া তো প্রথমে। আপনারা জানেন, ২০২১ সালে আমাদের দুজন ক্রিকেটার আইপিএল খেলে বিশ্বকাপে যোগ দিয়েছিল। তারা ওখানে ক্লান্তি অনুভব করেছিল। তারাও সেটি বলেছে। আমরা ও রকম পরিস্থিতি চাই না।’

সব সংস্করণ মিলিয়ে প্রথমবারের মতো ২০ দলের কোনো বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে আগামী জুনে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাই সতেজ মোস্তাফিজকে চায় বিসিবি। জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘দলের সঙ্গে থাকলে বোঝাপড়া বাড়বে। একটা বিশ্বকাপ, বড় ইভেন্ট হতে যাচ্ছে, এর আগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে যাতে থাকতে পারে, যেতে পারে। কারণ, মে মাসেই কিন্তু আমাদের খেলা শুরু হয়ে যাবে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৩টি টি-টোয়েন্টি। তাকে তো সেখানে মানিয়ে নিতে হবে। যাওয়ার আগে তো তার ফিট থাকতে হবে। শারীরিকভাবে ফিট থাকতে হবে। ক্লান্তি নিয়ে গেলে সে তো ডেলিভারি করতে পারবে না। তাহলে আমার কী দরকার? আমাকে তার প্রয়োজন। সতেজ মোস্তাফিজ চাই। ক্লান্ত মোস্তাফিজকে চাই না।’