আজ রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:
Logo সাতক্ষীরা থানায় হামলার চেষ্টা, পুলিশের লাঠিচার্জ ও ফাঁকা গুলি Logo যশোরে ডিবি পুলিশের অভিযানে পিস্তলসহ যুবক আটক Logo মোটরসাইকেল নিয়ে দ্বন্দ্বে ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি করে হত্যা, গ্রেপ্তার ২ Logo সাতক্ষীরায় কোটা বিরোধীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া Logo কোটা বহালে হাইকোর্টের রায় বাতিল চেয়ে লিভ টু আপিল Logo সাতক্ষীরায় কোটা আন্দলনকারী ও ছাত্রলীগ মুখোমুখি অবস্থানে Logo বেনা‌পো‌লে ঘোষণা বহির্ভূত ১৫ হাজার ৭৫০ কেজি সালফিউরিক এসিড জব্দ Logo ‘বাবাকে হত্যা করেছি আমাকে গ্রেপ্তার করুন’ Logo সাতক্ষীরায় দুই রোহিঙ্গা নারীসহ মানব পাচারকারী আটক Logo প্রশ্নফাঁসে জড়িত কুমিল্লার সোহেলের বোন শিক্ষা অফিসার, ভাবি শিক্ষক
বিজ্ঞাপন দিন
জাতীয়, আঞ্চলিক, স্থানীয় পত্রিকাসহ অনলাইন পোর্টালে যে কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। মেসার্স রুকাইয়া এড ফার্ম -01711 211241

সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে : গণতন্ত্র মঞ্চ

  • রিপোর্টার
  • আপডেট সময়: ০১:৫২:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪
  • ৪৪ বার পড়া হয়েছে

গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা বলেছেন, সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে। নিজেদের লোকেরাও এই সরকারের উপর আস্থা রাখতে পারছে না, ক্ষমতার খুঁটি নড়ে গেছে। আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৪, ’১৮-তে টিকে গেলেও এই দফায় টিকতে পারবে না। জনগণই তাদের ক্ষমতা থেকে বিদায় করবে। তাই সরকারকে বলব, অবিলম্বে পদত্যাগ করে মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। বুধবার (৫ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তারা। বেনজীর-আজিজদের মেগা দুর্নীতি এবং মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার নিয়ে গণভোগান্তির প্রতিবাদে গণতন্ত্র মঞ্চের উদ্যোগে এই বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বললেন, বেনজীর-আজিজ তাদের দলের কেউ না। কিন্তু দেশের সবাই জানে, সারা পৃথিবীই জানে- এদের গডফাদার কারা। এদের দিয়েই আওয়ামী লীগ টানা তিনবার ক্ষমতা দখল করেছে। ইন্টারপোলের লাল তালিকাভুক্ত মাফিয়া আনারই নাকি আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা। এদের দিয়েই এখন এই দলটা চলে।

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট হাসনাত কাইয়ূম বলেছেন, ক্ষমতাসীন সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় আজিজ-বেনজীররা হাজার হাজার কোটি টাকা বানিয়েছে। অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকতেই সরকার তাদের ব্যবহার করেছে। এখন তাদের বিরুদ্ধে বিচার করার নাটক করছে। আবার সরকারের যোগসাজশেই বেনজীর দেশ থেকে পালিয়েছে। সরকারের মধ্যে আরও শত শত বেনজীর, আজিজ, আনার আছে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে আগামীতে এ রকম আরও অনেকের জন্ম হবে। ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহবায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করে মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা না হলে সরকারের মধ্যে থাকা দুর্বৃত্তরা দেশকে ধ্বংস করে ফেলবে। আর সরকার ক্ষমতা দখল করতে এই দুর্বৃত্তদের লালন পালন করেছে। ভবিষ্যতেও তাদের উপর ভর করে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে চাইবে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার আজিজকে সেনাপ্রধান বানিয়েছে; বেনজীরকে র‍্যাবের মহাপরিচালক ও আইজিপি বানিয়েছে। আর এখন বলছে ওরা আমাদের লোক না। সরকারকে বলি, জনগণের ভোট ছাড়া ক্ষমতায় আছেন বলে সবাইকে বোকা ভাববেন না। এসব ধান্দা বাদ দিয়ে পদত্যাগ করেন। অর্থনীতি ধ্বংস করেছেন। সামনে আরও খারাপ সময় আসছে। ২০১৪, ’১৮-তে টিকে গেছেন। কিন্তু এই দফায় টিকতে পারবেন না। জনগণই আপনাদের ক্ষমতা থেকে বিদায় করবে। বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, কেয়ামতের দিন যেমন কেউ কাউকে চিনবে না, ইয়ানফসি ইয়ানফসি করবে- তেমনি এই সরকারও এখন নিজেদের লোকদের দায় অস্বীকার করছে। সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে। নিজেদের লোকরাও এই অবৈধ সরকারের উপর আস্থা রাখতে পারছে না, ক্ষমতার খুঁটি নড়ে গেছে।

সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গত ১৫ বছরে আজিজ-বেনজীরের মতো শত শত দুর্বৃত্তের জন্ম দিয়েছে। তাদের দিয়েই ক্ষমতা দখল করেছে, টিকিয়ে রেখেছে। এই সরকার দুর্বৃত্তদের লালন করে। দেশের খেটে খাওয়া জনগণ, প্রবাসী শ্রমিকদের শোষণ করে সরকার আজিজ, বেনজীর, দরবেশ, এস আলম, আনারদের হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক বানিয়েছে। এই সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে না পারলে দেশকে, দেশের জনগণকে বাঁচানো যাবে না। সমাবেশ পরিচালনা করেন গণসংহতি আন্দোলনের সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভূঁইয়া। পরে প্রেস ক্লাব ও এর আশপাশের এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

ট্যাগস:

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

সাতক্ষীরা থানায় হামলার চেষ্টা, পুলিশের লাঠিচার্জ ও ফাঁকা গুলি

সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে : গণতন্ত্র মঞ্চ

আপডেট সময়: ০১:৫২:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪

গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা বলেছেন, সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে। নিজেদের লোকেরাও এই সরকারের উপর আস্থা রাখতে পারছে না, ক্ষমতার খুঁটি নড়ে গেছে। আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৪, ’১৮-তে টিকে গেলেও এই দফায় টিকতে পারবে না। জনগণই তাদের ক্ষমতা থেকে বিদায় করবে। তাই সরকারকে বলব, অবিলম্বে পদত্যাগ করে মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। বুধবার (৫ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তারা। বেনজীর-আজিজদের মেগা দুর্নীতি এবং মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার নিয়ে গণভোগান্তির প্রতিবাদে গণতন্ত্র মঞ্চের উদ্যোগে এই বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বললেন, বেনজীর-আজিজ তাদের দলের কেউ না। কিন্তু দেশের সবাই জানে, সারা পৃথিবীই জানে- এদের গডফাদার কারা। এদের দিয়েই আওয়ামী লীগ টানা তিনবার ক্ষমতা দখল করেছে। ইন্টারপোলের লাল তালিকাভুক্ত মাফিয়া আনারই নাকি আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা। এদের দিয়েই এখন এই দলটা চলে।

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট হাসনাত কাইয়ূম বলেছেন, ক্ষমতাসীন সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় আজিজ-বেনজীররা হাজার হাজার কোটি টাকা বানিয়েছে। অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকতেই সরকার তাদের ব্যবহার করেছে। এখন তাদের বিরুদ্ধে বিচার করার নাটক করছে। আবার সরকারের যোগসাজশেই বেনজীর দেশ থেকে পালিয়েছে। সরকারের মধ্যে আরও শত শত বেনজীর, আজিজ, আনার আছে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে আগামীতে এ রকম আরও অনেকের জন্ম হবে। ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহবায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করে মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা না হলে সরকারের মধ্যে থাকা দুর্বৃত্তরা দেশকে ধ্বংস করে ফেলবে। আর সরকার ক্ষমতা দখল করতে এই দুর্বৃত্তদের লালন পালন করেছে। ভবিষ্যতেও তাদের উপর ভর করে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে চাইবে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার আজিজকে সেনাপ্রধান বানিয়েছে; বেনজীরকে র‍্যাবের মহাপরিচালক ও আইজিপি বানিয়েছে। আর এখন বলছে ওরা আমাদের লোক না। সরকারকে বলি, জনগণের ভোট ছাড়া ক্ষমতায় আছেন বলে সবাইকে বোকা ভাববেন না। এসব ধান্দা বাদ দিয়ে পদত্যাগ করেন। অর্থনীতি ধ্বংস করেছেন। সামনে আরও খারাপ সময় আসছে। ২০১৪, ’১৮-তে টিকে গেছেন। কিন্তু এই দফায় টিকতে পারবেন না। জনগণই আপনাদের ক্ষমতা থেকে বিদায় করবে। বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, কেয়ামতের দিন যেমন কেউ কাউকে চিনবে না, ইয়ানফসি ইয়ানফসি করবে- তেমনি এই সরকারও এখন নিজেদের লোকদের দায় অস্বীকার করছে। সরকারের মধ্যে ইয়ানফসি ইয়ানফসি শুরু হয়েছে। নিজেদের লোকরাও এই অবৈধ সরকারের উপর আস্থা রাখতে পারছে না, ক্ষমতার খুঁটি নড়ে গেছে।

সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গত ১৫ বছরে আজিজ-বেনজীরের মতো শত শত দুর্বৃত্তের জন্ম দিয়েছে। তাদের দিয়েই ক্ষমতা দখল করেছে, টিকিয়ে রেখেছে। এই সরকার দুর্বৃত্তদের লালন করে। দেশের খেটে খাওয়া জনগণ, প্রবাসী শ্রমিকদের শোষণ করে সরকার আজিজ, বেনজীর, দরবেশ, এস আলম, আনারদের হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক বানিয়েছে। এই সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে না পারলে দেশকে, দেশের জনগণকে বাঁচানো যাবে না। সমাবেশ পরিচালনা করেন গণসংহতি আন্দোলনের সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভূঁইয়া। পরে প্রেস ক্লাব ও এর আশপাশের এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।